বর্তমান সময়ঃ- 8 April, 2020

কিভাবে আপনার এন্ড্রুয়েড মোবাইলটিকে আরোও ফাস্টার এবং স্মুথ করবেন

ওয়েলকাম ব্যাক আমি আজকে আরেকটি আর্টিকেল নিয়ে আপনাদের সাথে হাজির হয়েছি তাহলে আজকে আমি যেই বিষয়গুলা নিয়ে আলোচনা করবো তা কম বেশি সবাই জানি আমাদের এন্ড্রুয়েড মোবাইল ফাস্ট করতে হয় কিভাবে টুইক করতে হয়। আজকের পোস্টে আমি সজিব ইসলাম আছি আপনাদের সাথে লেটস বিগিন………

এন্ড্রুয়েড  মোবাইলের একটিই অভ্যাস হচ্ছে এটি ৬-১২ মাস পড়ে বাগের সম্মুখীন হয় এবং এন্ড্রুয়েড স্লো হয়ে যায়। কিছু কম সমস্যা হচ্ছে যেই জাগায় আপনার প্রিয় এন্ড্রুয়েড মোবাইলটি অনেক দ্রুত গতিতে কাজ কাজ করতো সেটি আজকে একটি এপ্সে প্রবেশ করতে অনেক সময় নিচ্ছে এবং কিবোর্ড ওপেন হতেও আবার এনিমেশন গুলিয় কেমন লেজি হয়ে গেলো। অনেকেই চিন্তা করেন যে এখন নতুন একটি ডিভাইস কিনতে হবে অথবা এটিকে আপগ্রেড করতে হবে.কিন্তু এর জন্য আপনার পকেটে এনাফ টাকা ত থাকতে হবে নতুন কেনার জন্য কিন্তু আপনি চাইলে কিছু উপায় প্রয়োগ করে আপনার এন্ড্রুয়েড ডিভাইসটিকে আরও দ্রুত করতে পারেন হে আজকের আর্টিকেলে আমি এটি নিয়েই আলোচনা করতে যাচ্ছি। 

পড়তে ভুলবেন না:খুব সহজেই খুজে বের করুন আপনার হারিয়ে যাওয়া আইফোন

যেটি কাজ করে না:

অনেক মানুষজন এর ধারনা যে যদি তারা স্ক্রিনের এপ্স গুলাকে ক্লিয়ার করে মানে যেগুলি তারা রিসেন্টলি ইউজ করেছে সেগুলিকে যদি রিসেন্ট প্যানেল থেকে ক্লিন করা তাহলে ডিভাইস্টি ফাস্ট হয়ে যাবে। আর যাইহুক এটি ২০০৮ নয় এন্ড্রুয়েড অনেক বছর ধরে র‍্যাম মেনেজ করে নিজে নিজে এখনকার এন্ড্রুয়েড ডিভাইসগুলি নিজে থেকেই রিসেন্ট এপ্স কিল করে নেয় যদি আপনি অনেক সময় ধরে এটি ব্যবহার না করে থাকেন।এন্ড্রুয়েড

যেটি কাজ করে:

আনইন্সটল অথবা Junk এপ ডিজেবল করা:

অনেক এপ্লিকেশন রয়েছে যারা চুপি চুপি আপনার বেকগ্রাউন্ডে চলতে পছন্দ করে। আপনি আপনার ডিভাইসে যত বেশি এপ্স ইন্সটল করবেন আপনার বেকগ্রাউন্ডের প্রসেস তত বাড়তে থাকবে আপনার র‍্যাম তার যায়গা মত প্রসেস না দিতে পারবার কারনে একসময় ডিভাইস্টি ল্যাগ করে এবং অনেক সময় স্ক্রিন ব্ল্যাক অথবা রিস্টার্ট হয় আর সবচেয়ে ভয়ের কথা হচ্ছে এটি আপনার ব্যাটারি লাইফ কমিয়ে আনবে।এন্ড্রুয়েড

এর জন্য আমি আপনাদেরকে বেষ্ট সালুইশন দিতে পারি,যেই এপ্স আপনি সচরাচর ব্যাবহার করে থাকেন শুধু সেগুলি রাখুন বাকি গুলি আনইন্সটল করে দিন অথবা ডিজেবল যদি এই এপ্স গুলি রানিং প্রসেস এ ছিলো কিন্তু এখন আনইন্সটল করার কারনে আপনার ডিভাইস্টি স্মুথভাবে চলবে।

বেশি উত্তেজিত হয়ে সিস্টেম এপ ডিলিট করতে যাবেন না এতে আপনার ডিভাইস ক্রেশ করতে পারে। আপনার ডিভাইসে কি?  Evernote, Microsoft Word, অথবা Facebook এপ্স ইন্সটল করা আছে? এই এপ্সগুলি কখনো ব্যবহার করবেন না। 

আরোও দেখুন:৬০% ব্যাটারি রক্ষা করতে পারেন ইউটিউব এর ডার্ক মুড অন করে

এনিমেশন ডিজেবল করুন:

যদি আপনি আরও ফাস্টার এন্ড্রুয়েড ডিভাইস্টিকে ফিল করতে চান তাহলে আমি বলবো আপনি আপনার এন্ড্রুয়েডের জত ধরনের এনিমেশন রয়েছে সেগুলিকে ডিজেবল করুন।অনেকেই ভিজুয়ালিটি ফিল করার জন্য এটি চালু করে থাকেন কিন্তু এটি আপনার পারফরমেন্সকে আরোও ধির করে ফেলেছে।একটি এপ্স ওপেন হতে অনেক সময় পার করে দিচ্ছে।এনিমেশন ডিজেবল

এনিমেশন ডিজেবল করার জন্য প্রথমে আপনি আপনার এন্ড্রুয়েডের “ডেভেলপার অপশন” চালু করতে হবে “ডেভেলপার অপশন ” চালু করবার জন্য আপনার ডিভাইসের “এবাউটে গিয়ে বিল্ড নাম্বারে ৫-৬ বার ক্লিক করতে থাকুন আপনার “ডেভেলপার অপশন ” চালু হয়ে যাবে। তারপর ডেভেলপার অপশন থেকে “window animation scale, transition animation scale, and animator duration scale.এ সব গুলি অফ করে দিন।

যায়গা খালি করুন:

আপনার ইন্টারনাল স্টুরেজ যদি ফুল হয়ে যায় তাহলে মনে করতে হবে আপনার ডিভাইস্টি স্লো হওয়ার সময় হয়েছে মনে করার কিছু নেই স্লো হবেই এমনকি অনেক এপ্লিকেশন কাজ করা বন্ধ করে দিবে।ইন্টারনাল স্টুরেজ খালি রাখার জন্য প্রত্তেকটি এপ্স এর কেইচ ক্লিন করে রাখুন ভালো ফল পাবেন।ডেভেলপার অপশন

এটি অনেক উপকারি একটি পদ্ধতি যেটি সবসময় ১০ থেকে ১৫ শতাংশ যায়গা খালি রাখে তারপরও যদি দেখেন আপনার স্টুরেজ ফুল তাহলে Junk ফাইল ডিলিট করুন। স্টুরেজ খালি রাখার সবচেয়ে ভালো উপায় হচ্ছে আনইন্সটল করে দেওয়া যেগুলি ব্যবহার করা হয়না। 

একটি ফাস্ট মাইক্রোএসডি কার্ড:

এসডি কার্ড এ এপ্স ইন্সটল দেওয়া নিত্তান্তয়ি বুকামি ছাড়া আর কিছুই নয় কারন এতে ইন্সটল দেওয়ার ফলে আপনি সবসময় স্লো ফিক করবেন।অনেক এপ্লিকেশন রয়েছে নিজে থেকেই এসডিতে ইন্সটল হয়ে যায়। এই এপ্সগুলিকে স্পিড আপ করার জন্য আমি বলবো একটি ফাস্ট মাইক্রোএসডি কার্ড ব্যবহার করুন।

 ক্রোম ব্রাউজার ডাটা সেভিং মুড:

এই সিস্টেমটি শুধু আপনার মোবাইলকেই ফাস্ট করবে না সাথে এটি আপনার ডেটা বাচাতেও সাহায্য করবে।ক্রোম ডাটা সেভার আপনার ওয়েবপেজকে ৩০% কম্প্রেস করে ফেলে যার কারনে আপনার ডেটা বেচে যায়।এন্ড্রুয়েড

ডাটা সেভার চালু করার জন্য : ক্রোম চালু করে সেটিং অপশনে গিয়ে ডাটা সেভার মেনু পাবেন শেখান থেকে চালু করে দিন।

দেখে আসুন:৫ টি উপায়ে দ্রুত করুন ল্যাগ করা এন্ড্রয়েড মোবাইল

উইজেট রিমোভ করে দিন:

সিম্পলি বলতে গেলে আপনি যেই এপ্সটির উইজেট এনে আপনার হুম স্ক্রিনে রেখে দিয়েছেন আসলে সেটি এখনো রানিং প্রসেস এ আছে যদি আপনার হুমে উইজেট থাকে রিমোভ করে দিন।

এন্ড্রুয়েড মোবাইল রিসেট করা:

এটি হচ্ছে শেষ অপশন আপনার মোবাইলটি যখন ফাস্ট করার আর কুনু ওয়ে থাকবেনা তখন আপনি ডিভাইস্টি রিসেট করে দিন।ডেভেলপার অপশন

রিসেট করার আগে আপনি আপনার দরকারি ফাইল ডেটা বেকয়াপ করে নিন।

 

আজকের আর্টিকেলটি আসা করি সবারই কাজে লাগবে। প্রতিদিন এরকম টেক ট্রেন্ডা আর্টিকেল পেতে ভিসিট করুন বাংলাপেনে। আমি সজিব ইসলাম সাইনিং আউট ফ্রম বাংলাপেন.কম

এন্ড্রুয়েড সিরিজের কিছু রিলেটিভ আর্টিকেল :

কিভাবে পাওয়ার-বাটনে ক্লিক করেই সাথে সাথে ফ্লাসলাইট জালাবেন?

এন্ড্রয়েড ইউজারদের জন্য সেরা টাইম সেভিং শর্টকাট যেটি নানা ভাবেই সাহায্যে করবে

দেখে নিন কীভাবে এন্ড্রয়েড এ আরেকটি এন্ড্রয়েড সেট আপ করবেন

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *